প্রাণিভূগোল

 

প্রারম্ভিক আলোচনা: অধ্যায়টি থেকে একটি প্রশ্ন আসেই। বেশ কিছু জিনিস একটু ভালোমত পড়ে নিলে মনে রাখা সম্ভব।

 

অধ্যায় সারবস্তু:

 

১. মহাদেশীয় সঞ্চারণ সম্বন্ধে বর্তমান চিন্তাধারার জনক হচ্ছে আলফ্রেড ওয়েগেনার। ১৯১২ সালে মহাদেশীয় সঞ্চারণ তত্ত্ব উপস্থাপন করেন।

 

২. পুরো পৃথিবী জুড়ে যখন একটি মাত্র মহাদেশ ছিল (যখন পর্যন্ত মহাদেশ আলাদা হয় নি), এর নাম ছিল প্যানগিয়া (Pangaea), গ্রিক Pangia = all earth অর্থাৎ পুরো পৃথিবী।

 

৩. মহাদেশীয় প্লেটগুলো বছরে মাত্র ৫ সেমি (২ ইঞ্চি) অপসৃত হয়। কিন্তু হাজার বছরের হিসেবে এই সামান্য গতিবেগেই এত বিশাল প্রভাব দেখা যায়।

 

৪. ৩৭৫ মিলিয়ন বছর আগে উত্তরদিকের ভূখণ্ডকে লরেশিয়া নাম দেওয়া হয় আর দক্ষিণদিকে ভূখণ্ডকে বলা হয় গন্ডোয়ানা।

আগে ভারত এশিয়ার সাথে যুক্ত ছিল না, এটি ছিল গন্ডোয়ানার অংশ, আফ্রিকার সাথে সংযুক্ত।

 

৫. ৩২১ মিলিয়ন বছর আগে দুইটি মহাদেশ মিলে ঘোড়ার ক্ষুরাকৃতির ( ইংরেজি U এর মত দেখতে) মত অতিমহাদেশ গড়ে তোলে, যাকে প্যানগিয়া বলা হয়।

 

৬. ১৮৭৬ সালে আলফ্রেড রাসেল ওয়ালেস ৬ টি প্রাণিভৌগলিক অঞ্চল শনাক্ত করেছিলেন, তা হল:

 

প্রাণিভৌগলিক অঞ্চল

অন্তর্ভুক্ত এলাকা

প্যালিআর্কটিক অঞ্চল

(প্যালি বলতে প্রাচীন আমলের বোঝায় আর আর্কটিক বলতে উত্তরের অঞ্চল বোঝায়)

ইউরোপ

উত্তর আফ্রিকা

উত্তর ও মধ্য এশিয়া

 

নিআর্কটিক অঞ্চল

(নিও বলতে নতুন বোঝায়)

উত্তর আমেরিকা, গ্রীনল্যান্ড, আইসল্যান্ড

নিওট্রপিকাল অঞ্চল

(ট্রপিকাল বলতে উষ্ণ অঞ্চল বোঝায়)

দক্ষিণ ও মধ্য আমেরিকা

ইথিওপিয়ান অঞ্চল

মধ্য ও দক্ষিণ আফ্রিকা, মাদাগাস্কার

 

ওরিয়েনটাল অঞ্চল

(ওরিয়েন্টাল বলতে সূর্য উঠার দিক বা পূর্ব বোঝায়)

দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া, কিছু ইন্দোনেশিয় দ্বীপ

অস্ট্রেলিয়ান অঞ্চল

অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, পলিনেশিয়ান দ্বীপ পুঞ্চ, ইন্দোনেশিয়ার পূর্বাংশীয় দ্বীপ

 

৭. সবচেয়ে বড় প্রাণিভৌগলিক অঞ্চল হচ্ছে প্যালিআর্কটিক অঞ্চল।

 

৮. বাংলাদেশ ওরিয়েন্টাল অঞ্চলের অন্তর্গত।

 

৯. গুরুত্বপূর্ণ কিছু এন্ডেমিক প্রাণী নিচে উল্লেখ করা হল:

অঞ্চল

এন্ডেমিক প্রাণী

প্যালিআর্কটিক অঞ্চল

১. জায়ান্ট স্যালামান্ডার (উভচর)

২. চাইনিজ এলিগেটর (সরিসৃপ)

ওরিয়েন্টাল অঞ্চল

১. পাঙ্গাস মাছ

২. মালাবার গেছোব্যাঙ

৩. কালো ব্যাঙ

৪. বোস্তামী কচ্ছপ

৫. ঘড়িয়াল

৬. ওরাং-ওটাং

অস্ট্রেলিয়ান অঞ্চল

১. লাংফিশ

২. শ্বেতবক্ষ ব্যাঙ

৩. এমু

৪. কিউই

৫. প্লাটিপ্লাস

 

১০. ওয়ালেস-এর রেখা ওরিয়েন্টাল ও অস্ট্রেলিয়ান প্রাণিভৌগলিক অঞ্চলের মাঝখানে অবস্থিত। (ওয়েগেনার ৬টি অঞ্চলে বিভক্ত করেন)

 

১১. ওয়েবার-ও ওরিয়েন্টাল ও অস্ট্রেলিয়ান প্রাণিভৌগলিক অঞ্চলের মাঝখানে একটি বিকল্প রেখা প্রস্তাব করেন। এটি ওয়ালেস-এর রেখার পূর্ব দিকে অবস্থিত।

 

Twitter icon
Facebook icon
Google icon
StumbleUpon icon
Del.icio.us icon
Digg icon
LinkedIn icon
MySpace icon
Newsvine icon
Pinterest icon
Reddit icon
Technorati icon
Yahoo! icon
e-mail icon